গুজবে কান দিবেন না অপরাধীকে আইনের হাতে তুলে দিন-দৈনিক বাংলার অধিকার

0
38

মো: আবদুল কাদের,দৈনিক বাংলার অধিকার,লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি:
ছেলেধরা গুজব রোধে রায়পুর থানা পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে গণসচেতনতামলূক প্রচারণা চালানো হচ্ছে।
বুধবার সকাল থেকে মাইকিংয়ের পাশাপাশি পথসভা, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচারণাসহ শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্কুলগুলোতে সচেতনতামূলক সভা হয়েছে।
রায়পুর থানা পুলিশের ওসি তোতা মিয়া বলেন, ছেলেধরা সন্দেহে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে ছয় নারী-পুরুষ গণপিটুনির শিকার হয়। তাদের প্রত্যেকেই মানসিক ভারসাম্যহীন ছিলেন। পদ্মা সেতুর জন্য মাথা ও রক্ত লাগবে এ ধরনের গুজব নিরসনে পুলিশের পক্ষ থেকে এসব প্রচারণা চালানো হচ্ছে।
এছাড়াও ছেলেধরা গুজব ছড়িয়ে কাউকে গণপিটুনি না দেয়ার জন্য প্রশাসনের উদ্যোগে জনসাধারণকে সতর্ক করতে মাইকিং করা হচ্ছে। দেশকে অস্থিতিশীল করার জন্য গুজব ছড়াচ্ছে। গুজব সৃষ্টিকারী এবং যারা গুজবে সাড়া দিয়ে মারামারি করে, গুজবের নিউজ করে, শেয়ার, লাইক, কমেন্ট করে, তাদেরকে দ্রুত আইনের আওতায় আনা হবে।
রায়পুর থানার আওতাধীন সব ইউপি চেয়ারম্যান, মেম্বার ও গ্রাম পুলিশদের সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য বলা হয়েছে। এছাড়া কোথাও ছেলেধরা সন্দেহ হলে সঙ্গে সঙ্গে থানায় যোগাযোগ করার জন্য বলা হয়েছে।
এছাড়া ইভটিজিং, বাল্যবিবাহ, ইন্টারনেটের অপব্যবহারকে না বলার জন্য ছাত্র-ছাত্রীদের আহবান করেন।
রায়পুর এল এম পাইলট উচ্ছ বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির সভাপতি বলেন, হুজুগ এবং গুজবে কান দেয়া যাবেনা। শিক্ষার্থীদের আরো সচেতন হতে হবে স্কুলে নিয়মিত আসতে হবে। মনোযোগ দিয়ে লেখাপড়া করতে হবে, হোটেলে বাজারে আড্ডা দেয়া যাবেনা।