পটিয়ায় এক ব্যবসায়ীকে হত্যার হুমকিতে জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে থানায় জিডি- দৈনিক বাংলার অধিকার    

0
28

নিজস্ব প্রতিবেদনঃট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলার কোলাগাঁও ইউনিয়নে মরহুম সোনা মিয়া চেয়ারম্যান এর বাড়ির মরহুম আহমদ নবী সওদাগরের ছেলে

পটিয়ায় নাজিম উদ্দীন রনি নামের এক ব্যবসায়ীকে হত্যার হুমকি দিয়েছে মর্মে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ১৮ নভেম্বর সোমবার বিকাল ৩টায় কালারপোল সেতু সংলগ্ন নাজিম উদ্দীন মালিকানাধীন দোকানে তাকে হত্যার হুমকি দেওয়া হয়। এ ঘটনায় নাজিম বাদী হয়ে উত্তর দেয়াং কালা মিয়া সওদাগরের বাড়ির মোঃ জসিম উদ্দীন, মোঃ জামাল উদ্দীন, আশফাক কমর সহ অজ্ঞাত নামা ৫/৬ জন এর বিরুদ্ধে পটিয়া থানার সাধারণ ডায়েরী করে। থানার অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, জসিম গং বিভিন্ন অসামাজিক কার্যকলাপে বিরুদ্ধে নাজিম উদ্দীন রনি প্রতিবাদ করার জেরধরে প্রতিপক্ষরা বিভিন্ন সময়ের নানাভাবে হুমকি দিয়ে আসলেও কিন্তু গত ১৮ নভেম্বর জসিম গং প্রকাশ্যে নাজিম কে হত্যার হুমকি দিয়ে বলে নাজিম উদ্দীন এর মালিকানাধীন দোকান থেকে মাসোহারা দিতে হবে অন্যতাই দোকান ভাংচুর আগুন জ্বালিয়ে দেবে বলে হুমকি প্রদান করে। বিষয়টি নাজিমউদ্দীন পটিয়ার এমপি হুইপ আলহাজ্ব শামসুল হক চৌধুরী, পটিয়া উপজেলার চেয়ারম্যান মোতারুল ইসলাম চৌধুরী কে অবহিত করে পটিয়া থানা প্রতিপক্ষ সন্তাসীদের বিরুদ্ধে সাধারণ ডায়েরী করে প্রতিকার চাই।

বিষয়টি সত্যতা নিশ্চিত করে পটিয়া থানার ওসি মোঃ বোরহান উদ্দিন জানান অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত করে ব্যাবস্তা নেওয়া হবে। বর্তমানে প্রতিপক্ষদের হুমকি ধামকি নাজিম উদ্দীন রনি জীবনের চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন বলে জানান। সে এ ব্যাপারে পুলিশ প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছে।

স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে নাজিম উদ্দীন রনি দীর্ঘদিন ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত থেকে দলের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছিলেন বিগত পটিয়া উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের কমিটিতে সহ সম্পাদকের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেন বর্তমানে পটিয়া উপজেলা যুবলীগের সন্মেলন প্রস্তুুতি কমিটির অন্যতম সদস্য যুবনেতা নাজিমউদ্দীন রনিকে হত্যার হুমকি তিব্র নিন্দা প্রতিবাদ জানিয়েছেন পটিয়া উপজেলা যুবলীগের সন্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহবায়ক হাসান উল্লা চৌধুরী যুগ্ন আহবায়ক ইমরান উদ্দীন বশির, যুগ্ম আহ্বায়ক মাষ্টার রিটন নাথ উপজেলা যুবলীগের সিনিয়র নেতা মোঃ ফোরকান, মোঃ আবুল হাসনাত মোহাম্মদ ফয়সাল, মোহাম্মদ দিদারুল আলম, শাহানা আক্তার টিয়া সহ নেতৃবৃন্দ।