প্রতিভাবান শিল্পী মহিমা দেব ত্রয়ী- দৈনিক বাংলার অধিকার

0
53

যীশু সেন, মহিমা দেব ত্রয়ী, প্রতিভাবান একজন সংগীতশিল্পী। তার পিতা অজিত দেব, মাতা-দেবীকা দেব দেবী। তার পৈত্রিক নিবাস পটিয়া থানা ভাটিখাইন গ্রামে হলেও মহিমার জন্ম ও বেড়ে ওঠা চট্টগ্রাম শহরে। বড় ভাই মহৎ দেব আপন বর্তমানে প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজি বিভাগে অনার্সে ১ম বর্ষে অধ্যয়নরত। এক ভাই ও এক বোনের মধ্যে ছোট মহিমা। পড়াশোনায় সেন্ট যোসেফ টিউটোরিয়াল স্কুল থেকে নার্সারি হতে ৩য় শ্রেণি, অপর্ণাচরণ সিটি কর্পোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ৪র্থ শ্রেণি, সিটি সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় হতে ৫ম থেকে ৮ম শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষা গ্রহণ করেছে। বর্তমানে পড়ালেখার পাশাপাশি মা-বাবা ও বড় ভাইয়ের অনুপ্রেরণায় সঙ্গীত, তবলা, আবৃত্তি, উপস্থাপনা ও গীতা শিক্ষা নিয়মিতভাবে অনুশীলনের মধ্যে অনিন্দ্য সুন্দর পথে এগিয়ে চলছে মহিমা। ছোট বেলায় বড় ভাইয়ের সাথে সাথে গান গাইতেন তিনি। মহিমা’র উৎসাহ দেখে তাকে তার মা-বাবা সঙ্গীত শিক্ষক শিল্পী রিটন ধর এর নিকট থেকে প্রায় ৫ বছর গানের তালিম দিয়ে দেন। বর্তমানে সে উচ্চাঙ্গ সঙ্গীতে শিল্পী সুব্রত দাশ অনুজ-এর কাছে তালিমরত আছেন। তবলার প্রথম শিক্ষা শুরু হল তার মামা তবলা শিল্পী বিটু মুহুরীর থেকে। এরপর তবলা শিল্পী সুদেব দাশ-এর কাছে তালিম নিয়েছেন। বোধন আবৃত্তি পরিষদের থেকে আবৃত্তি শিক্ষা গ্রহণ করে। ছোটবেলা হতে বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে কৃতিত্বের স্বাক্ষর রেখেছে। চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন কর্তৃক আয়োজিত ১৬ ডিসেম্বর ২০১৭ সালে লোকসঙ্গীত ১ম স্থান ও দেশের গানে ২য় স্থান। ২০১৬ সালে দেশের গানে ১ম ও আবৃত্তিতে ২য় স্থান। ২০১৪ সালে বিজয় দিবসে নজরুল সঙ্গীতে ১ম স্থান, রবীন্দ্র সংগীতে ২য় স্থান লাভ করে। জাতীয় শিশু পুরস্কার প্রতিযোগিতায় ২০১৬ সালে নজরুল সঙ্গীত ও রবীন্দ্র সঙ্গীতে ২য় স্থান, ২০১৮ তে থানা পর্যায়ে ভাবসঙ্গীত, দেশাত্ববোধ ও নজরুল সঙ্গীতে ১ম স্থান, ২০১৯ সালে এর থানা পর্যায়ে উচ্চাঙ্গ সংগীত ও লোক সঙ্গীতে ১ম স্থান এবং উপজেলা পর্যায়ে লোক সঙ্গীতে ১ম স্থান ও উচ্চাঙ্গ সঙ্গীতে ২য় স্থান এবং জেলা পর্যায়ে লোকসঙ্গীতে ২য় স্থান অর্জন করেন। বাংলাদেশ পূজা উদ্্যাপন পরিষদ চট্টগ্রাম মহানগর আয়োজিত ২০১৮ সালে ভক্তিগীতিতে ১ম স্থান, ২০১৬ সালে ১ম স্থান, সৎসঙ্গ কর্তৃক প্রতিযোগিতায় ২০১৫ সালে ভক্তিগীতিতে ১ম স্থান, ২০১৬ সালে ১ম স্থান, বাংলাদেশ গীতা শিক্ষা কমিটি (বাগীশিকÑ কর্তৃক আয়োজিত ভক্তিগীতি প্রতিযোগিতায় ২০১৫ সালে ১ম স্থান ও গীতা শিক্ষায় প্রশিক্ষক কর্মশালায় ২০১৮-তে প্রশিক্ষণ সনদ অর্জন করেন।

অমর একুশে বইমেলা ২০১৯ সালে লোকসঙ্গীত ও আবৃত্তিতে ১ম স্থান, খেলাঘর চট্টগ্রাম মহানগর কর্তৃক আয়োজিত প্রতিযোগিতা ২০১৫ আবৃত্তিতে ১ম স্থান, বোধন আবৃত্তি স্কুল প্রশিক্ষণ কোর্স-২০১৭-তে উত্তম স্থান অর্জন করেন। মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক অধিদপ্তর বাংলাদেশ ঢাকা কর্তৃক আয়োজিত চট্টগ্রাম অঞ্চলে থানা পর্যায়ে উচ্চাঙ্গ সংগীতে প্রথম স্থান, জেলা পর্যায়ে প্রথম স্থান এবং বিভাগীয় পর্যায়ে প্রথম স্থান অর্জন করেন। সঙ্গীত ও সুর এমনভাবে তার অন্তর জুড়ে আছে যে, সরকারের থেকে আর্থিক দিক দিয়ে সহযোগিতা পেলে ভবিষ্যতে বিদেশের মাটিতে বাংলাদেশের সুনাম অক্ষুণœ রাখবে। এই শুভ প্রত্যয় নিয়ে প্রতিভাবান শিল্পী মহিমা দেব সঙ্গীতে নির্মল পথে যাত্রা আরো সুদীর্ঘ হোক সেই শুভ কামনায় রইল তার প্রতি।