যশোরের কুয়াদা বাজার আশা এনজিও থেকে দুঃসাহসিক চুরি – দৈনিক বাংলার অধিকার

0
68

 

ইমরান হোমেন,মিলন যশোর ব্যুরো চীফঃ যশোর সদরের কুয়াদা বাজারে বে-সরকারি সংস্থা আশা এনজিও থেকে দুঃসাহসিক ভাবে একটি বাইসাইকেল চুরি হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার রাত আনুমানিক সাড়ে ৮ টার দিকে।

সূত্রে জানা যায়, সদর উপজেলার বাজুয়াডাঙ্গা গ্রামের কুয়াদা বাজার সংলগ্ন কামালপুর – খরিচাডাঙ্গা সড়কে আঃ মজিদের বাড়ি ভাড়া নিয়ে দীর্ঘদিন যাবৎ আশা এনজিও সুনামের সাথে তাদের কার্যক্রম চালিয়ে আসছে।

মনিরামপুর উপজেলার ভোজগাতি ইউনিয়নের ব্যাগারীতলা গ্রামের মৃত গোলাম রব্বানী সরদারের ছেলে রফিকুল ইসলাম আশা সংস্থার কুয়াদা বাজার শাখায় পিওন পদে অস্থায়ীভাবে কিছুদিন পূর্বে নিয়োগ পায়। অফিসের কাজ শেষে প্রতিদিন সে রাতে বাড়ি চলে যায়। একইভাবে মঙ্গলবার রাতে বাড়ি যাওয়ার জন্য তার ব্যবহৃত একটি লাল রং এর ক্যাপটেন বাইসাইকেল বের করে অফিসের রান্নাঘরের সামনে রেখে,পুনরায় অফিসের ভেতর চলে যাই। আধাঘন্টা পরে অফিস থেকে বের হয়ে দেখে তার বাইসাইকেল টি ওখানে নেই। অনেক খোঁজা-খুজির পর ও পাওয়া যাই নি।

এ দিকে কুয়াদা বাজারসহ আশপাশে প্রায়ই চুরির ঘটনা ঘটছে। এ ঘটনায় এলাকায় চুরি আতংক বিরাজ করছে। এলাকাবাসী বলেন, চিহ্নিত একটি সংঘবদ্ধ দল এলাকায় গাঁজ,তাড়ি,ইয়াবা,ফেনসিডিল, রেক্টি ফাইড স্পিরিট সহ নানা ধরনের মাদক দ্রব্য দেদারছে সেবন করছে।

এ সব কারনে কুয়াদা এলাকায় রাতে প্রায়ই চুরি,ছিনতাই,ডাকাতি, মহিলাদের ঘরে ঠেলে ওঠাসহ নানা ধরনের অপরাধ মুলক কর্মকান্ড দিন দিন বেড়েই চলেছে।

এ নিয়ে প্রশাসনের ও কোনো মাথা ব্যাথা নেই। উল্লেখ্য কিছুদিন আগে কুয়াদা বাজার সংলগ্ন সাতমাইল নামক স্থানে (ক্রাইম পয়েন্ট) যশোর- সাতক্ষীরা মেইন সড়কে রাতে ট্রাকে গনডাকাতির ঘটনা ঘটেছে।

এ ঘটনার পরদিন এক ট্রাক ড্রাইভার বাদি হয়ে যশোর কোতয়ালী মডেল থানায় একটি ডাকাতি মামলা দায়ের করেন। নাম প্রকাশ না করার শর্তে এলাকার একাধিক ব্যক্তি দৈনিক বাংলার অধিকার কে  জানায়, এই সব মাদকসেবী, লম্পট কিছু চিহ্নিত ব্যক্তির জন্য আমাদের স্কুল- কলেজ পড়ুয়া মেয়েরা সব সময় ভয়ে থাকে, কখন যেন কোন অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটে যায়।

এ বিষয়ে সচেতনমহল চুরি,ছিনতাই,মাদক সেবন বন্ধ করার জন্য কুয়াদা এলাকায় দ্রুত প্রশাসনের অভিযান পরিচালনা করার জন্য জোর দাবি জানিয়েছেন।

ইমরান হোসেন মিলন
যশোর ব্যুরো চীফঃ
মোবাঃ ০১৭৩৬-৫০০৫০৪
তাং- ২১-০৮-২০১৯ ইং।