রুয়েট ছাত্রীকে অটোরিকশার মধ্যে যৌন হয়রানি করে ফেলে দেওয়া হলো রাস্তায়- দৈনিক বাংলার অধিকার

0
45

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহীঃরাজশাহীতে ফের এক ছাত্রীকে যৌন হয়রানির পর অটোরিকশা থেকে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ওই ছাত্রী নিজেই সোমবার বিকেলে তাঁর ফেসবুকে ওই ঘটানটি তুলে ধরে পোস্ট করেন।

ঘটনাটি ঘটে সোমবার দুপুরে।
ওই ছাত্রী লেখেন, “আমার বাসা উপশহর। বাসা দূরে বলে আমি সাধারণত রুয়েট থেকে রেলগেট পর্যন্ত অটোতে করে আসি। আজকেও প্রতিদিনের মতো অটো নিলাম, সাথে ছিল দুজন অপরিচিত রুয়েটিয়ান ভাইয়া আর একজন ভদ্রলোক। রুয়েটিয়ান ভাই দুজন চিশতিয়ার সামনে নেমে গেলেন। ভদ্রা পার হয়ে কিছু দূর যাওয়ার পর হঠাত্ অটোওয়ালা অটো থামায় দিল, সামনে থাকা ভদ্রলোককে বলল, ‘আপনি নেমে যান, আমি নিজস্ব লোক তুলব!’ আমি কিছু বুঝে ওঠার আগেই ওই ভদ্রলোককে জোরপূর্বক নামিয়ে চারজন গুণ্ডা উঠে অটো চালানো শুরু হয়ে গেল! ভদ্রা থেকে রেলস্টেশন পর্যন্ত রাস্তা মোটামুটি নির্জন, ইচ্ছামতো সেই চারজন আমাকে স্পর্শ করা শুরু করল। হাজারবার অটো থামানোর জন্য চিত্কার করার পরও অটোওয়ালা পশুর মতো হাসতে থাকল…

পরে নগর ভবনের সামনে পুলিশ দাঁড়া থাকতে দেখে ভয় পেয়ে তারা অটো থেকে ধাক্কা মেরে আমাকে ফেলে দিয়ে দ্রুত চলে গেল!!! যতক্ষণে নিজের পায়ে দাঁড় হতে পেরেছি ততক্ষণে অটো বহুদূর…

কাহিনিটা শুধু শেয়ার করলাম। এইটা বাংলাদেশ, কোনো বিচারের আশা আমি করছি না। ”

শেষে ওই ছাত্রী লেখেন, ‘বি. দ্র. অনেকের মনে প্রশ্ন থাকতে পারে আমার পোশাক কী ছিল? সাধারণ বাঙালি নারীর মতো সালোয়ার-কামিজ।


এর আগে গত ১০ আগস্ট রুয়েট শিক্ষক রাশিদুল ইসলামের স্ত্রীকে যৌন হয়রানির প্রতিবাদ করায় বখাটেরা হামলা করে ওই শিক্ষকের ওপর। এ নিয়ে নগরীর বোয়ালিয়া থানায় একটি মামলা করা হয়। তবে এখনো কেউ গ্রেপ্তার হয়নি